স্বাস্থ্য

শরীর থেকে যত ঘাম ঝরবে তত ভাল 

প্রকৃতিতে বর্ষাকালে ও তাপমাত্রা একটুও কমেনি। প্রচন্ড গরমে কারও কারও শরীরে খুব বেশি ঘাম হয়।

নিয়ে অস্বস্তিতেও পড়তে হয় তবে এই ঘাম যে আসলে শরীর ভাল রাখে, তা অনেকেরই অজানা।

বর্ষা এলেও গরম কমেনি। বাস কিংবা ট্রেন অথবা যেকোনো যানবাহনে উঠলেই ঘাম হচ্ছে। অনেকের আবার ঘাম বেশি হয়।

সকালে অফিস পৌঁছানোর আগেই জামা-কাপড় একেবারে ভিজে চপচপে হয়ে যায়। এমন অবস্থায় অফিসে ঢুকতে নিজের কাছেই অস্বস্তি লাগে।

তবে ঘাম নিয়ে অস্বস্তিতে থাকার কোনো কারণ নেই। বরং জেনে রাখা জরুরি যে, ঘাম হওয়া অনেক ক্ষেত্রে শরীরের জন্য খুবই উপকারী।

শরীরে ঘাম হওয়ার যত উপকারিতা ভাল শরীরের জন্য?

এক, ঘামের সঙ্গে শরীরের অনেক দূষিত পদার্থ বেরিয়ে যায়। মাদক দ্রব্যও যদি সেবন করে থাকেন, তা-ও আবার বেরিয়ে যায় ঘামের সঙ্গে। ফলে শরীর পরিষ্কার হয়।

দুই, ওজন ঝরতে শুরু করে তাড়াতাড়ি। শরীরের ওজনের একটি বড় অংশ হল জলের জন্য।

যত বেশি ঘাম হবে, জলের ওজন ততটাই কমতে থাকবে শরীর থেকে। তাই ঘাম ওজন কমানোর জন্য জরুরি।

তিন, ঘাম ব্যাক্টেরিয়া ও অন্যান্য জীবাণুর থেকে শরীরকে বাঁচাতে সাহায্য করে। যত ঘাম হয়, ততই রোমকূপগুলি খুলতে থাকে।

ফলে ত্বক জমে থাকা ধুলো-ময়লা বেরিয়ে যায়। তাতে ত্বক ঝকঝকে হয়। মসৃণ দেখায়। ঘাম হলে ত্বকে রক্ত চলাচলও বাড়ে। ফলে ত্বকের জেল্লা বেড়ে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও পড়ুন