অফবিট

বিশ্বের সবচেয়ে পরিষ্কার দশ শহর

রাবেয়া বশরী আরবিয়া:
বিশ্বের সবচেয়ে পরিষ্কার দশ শহরের তালিকা তৈরি করেছে আমেরিকার নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক লাইফস্টাইল ম্যাগাজিন রিডার্স ডাইজেস্ট। মার্কিন এই ম্যাগাজিনের দৃষ্টিতে বিশ্বের সবচেয়ে পরিষ্কার দশটি শহর সম্পর্কে সংক্ষেপে উপস্থাপন করা হলো-

১. হেলসিঙ্কি:


ইউরোপের অত্যন্ত সুগঠনবিশিষ্ট শহর হেলসিঙ্কি। এটি পর্যটকদের বিস্ময়াবিষ্ট সবুজ পাহাড়, পাহাড়ি এলাকায় জাদুঘর এবং সমুদ্র সৈকত পয়েন্ট আছে হেলসিঙ্কিতে। ৭৮ লাখ জনসংখ্যার এই শহরটি বহিরাগত পর্যটক আকর্ষণের জন্য পরিচিত। পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য শহরের বাসিন্দাদের গড় আয়ূ বেশি। এটি ফিনল্যান্ডের রাজধানী শহরও।

২. নিউ ইয়র্ক: 


নিউ ইয়র্ক আমেরিকার একটি বিস্ময়কর শহর। এই শহরে জনসংখ্যা প্রায় ১ কোটি ৭ লাখ। জাদুঘর, পার্ক, রেস্তোরাঁ, হোটেল ও বড় শপিং সেন্টারের জন্য বিখ্যাত নিউ ইয়র্ক। এটি আমেরিকা অভিজাত ও বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ততম শহর।

৩. কোবে:


কোবে জাপানের একটি ধনী শহর। কোবে জাপানের জনবহুল ও বিভিন্ন আকর্ষণীয় দর্শনীয় স্থান আছে। কোবে পর্যটকদের প্রিয় স্থান। তাই এই শহর উন্নত নিকাশী ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এবং পরিবেশবান্ধব যানবাহনের জন্য খ্যাতি আছে। কোবের নাগরিকদের গড় আয়ূ দেশটির অন্য শহরের তুলনায় বেশি।

৪.ওয়েলিংটন:

ওয়েলিংটন নিউজিল্যান্ডের একটি প্রধান শহর। রেকর্ড অনুযায়ী শহরটির জনসংখ্যা প্রায় ৫৬ লাখ। এখানে থিম পার্ক, জঙ্গল পার্ক, জাদুঘর, সবুজ রাস্তা আছে। এটি আন্তর্জাতিক পর্যটকদের জন্য একটি আদর্শ শহর। এই শহরের জনসংখ্যার অত্যন্ত বেশি, তবে তার সৌন্দর্য ও প্রাকৃতিক আকর্ষণ ক্ষতিগ্রস্ত হয় না।

৫.সিঙ্গাপুর:
সিঙ্গাপুর বিশ্বের ব্যস্ততম ও পরিষ্কার এশিয়ান শহরগুলোর মধ্যে অন্যতম। মানুষ এখানে ব্যস্ত জীবনযাপন সত্ত্বেও যে, সন্ধ্যার সময় এক নিরিবিলি পরিবেশ তৈরি হয় যেখানে সময় কাটানো সত্যি মনোমুগ্ধকর। মোট ৫৬ লাখ জনসংখ্যা রয়েছে শহরটিতে। এই শহর বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশ্বে প্রভুত্ব বিস্তার করে।

৬. লন্ডন :
লন্ডন একটি সুন্দর এবং উন্নত শহর হতে পারে, কিন্তু এই শহর তার পরিষ্কার সড়ক ও রিফ্রেশ বায়ুমন্ডলের জন্য সমানভাবে বিখ্যাত। লন্ডনে আবহাওয়া সাধারণত অত্যন্ত আনন্দদায়ক। বিশ্বের নানান দেশের ও নানান জাতের মানুষ বসবাস করে লন্ডনে।

৭.ফ্রেইবুর্গ:
সবুজ পাহাড় সঙ্গে পুষ্পময় শহরে সময় উপভোগ করতে চান তাহলে ফ্রেইবুর্গই বেশি ভালো। এই শহর তার তাজা ঘাস বাগান, পার্ক, সুন্দর রাস্তা, গাছ পালা এবং ইকো বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশের জন্য বিখ্যাত। ফ্রেইবুর্গ জার্মানের একটি শহর।

৮.প্যারিস:
প্যারিস পরিষ্কার সড়কের জন্য বিখ্যাত। ট্রাফিক সিস্টেম এবং সুন্দর থিম পার্কের জন্যও বিশ্বজুড়ে প্রশংসিত। কেনাকাটা ও ফ্যাশন প্রেমীদের জন্য প্যারিস অন্যতম শহর। প্যারিস ফ্রান্সের রাজধানী শহরও। ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য এই শহর খুবই উপভোগ্য। এছাড়া প্রেমের নগরী হিসেবে জুনিয়াজুড়ে রয়েছে সুখ্যাতি।

৯. ব্রিসবেন:
ব্রিসবেন অস্ট্রেলিয়ার একটি মনোরম ও পরিষ্কার শহর। শহরটিতে প্রায় ২৪ লাখ জনসংখ্যার বসবাস। আর্দ্র আবহাওয়া ও ব্যায়ামের পরিবেশের জন্য বিখ্যাত। ব্রিসবেনে পযটকদের জন্য রয়েছে আবাসিক সুবিধা। সংগঠিত ও নিরাপদ শহর হিসেবেও ব্রিসবেনের খ্যাতি বিশ্বজোড়া।

১০. অসলো: 

অসলো নরওয়ের ব্যস্ততম ও সুন্দরতম একটি নগর। এটিকে শান্তির শহরও বলা হয় কারণ এখান থেকেই প্রতি বছর শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয়। সুন্দর সবুজ পার্ক, হৃদ ও বাগানের জন্য বিখ্যাত অসলো। বিশ্বের দ্বিতীয় সবুজ শহরের খ্যাতিও পেয়েছে অসলো। এটি নরওয়ের রাজধানী শহরও।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও পড়ুন