অফবিট স্লাইড

বাংলাদেশি ড. সনজীদা খাতুনের হাতে ভারতীয় পদ্মশ্রী পুরস্কার

প্রিয়ালী সান্যাল:

বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ড. সনজীদা খাতুনের হাতে ভারতের মর্যাদাপূর্ণ পদ্মশ্রী পুরস্কার হস্তান্তর করা হয়েছে। ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের পক্ষে ঢাকায় দেশটির হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী ২৯ মার্চ এই পুরস্কার তার হাতে তুলে দেন।

দোরাইস্বামী সনজীদা খাতুনকে স্মারক দিয়ে অভিনন্দন জানান, যা মৈত্রী দিবসে ২০২০ ও ২০২১ সালের পদ্মশ্রী পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের দেওয়া হয়েছিল। ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনের ফেসবুক পেজে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

শিল্পকলায় অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে গত বছরের ১৯ নভেম্বর সনজীদা খাতুনকে ভারতের রাষ্ট্রীয় বেসামরিক সম্মাননা পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত করা হয় তবে শারীরিক অসুস্থতার জন্য তিনি ভারতে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেননি।

সনজীদা খাতুন বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব। তিনি একাধারে রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী, লেখক, গবেষক, সংগঠক, সঙ্গীতজ্ঞ ও শিক্ষক। বিশিষ্ট এই সংগীতজ্ঞ ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশ মুক্তিসংগ্রামী শিল্পী সংস্থার অন্যতম প্রধান প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন।

তিনি বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ছায়ানটের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও বর্তমান সভাপতি। তাঁর তত্ত্বাবধানে ষাটের দশকে প্রতিষ্ঠিত ছায়ানট এখন একটি বিশ্বখ্যাত প্রতিষ্ঠান, যা শাস্ত্রীয় সংগীত ও নৃত্যের প্রসারে কাজ করছে।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ২১ নভেম্বর ভারত সরকারের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘পদ্মশ্রী’ খেতাব সনজীদা খাতুনের সঙ্গে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সাবেক উপদেষ্টা অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট কর্নেল কাজী সাজ্জাদ আলী জহির বীরপ্রতীককেও দেওয়ার ঘোষণা দেয় ভারত সরকার। তিনি পদক পান ‘পাবলিক অ্যাফেয়ার্স’ শাখায়।

Leave a Reply

আরও পড়ুন