সাহিত্য

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিব বর্ষ

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিব বর্ষ

হে! বঙ্গবন্ধু তোমার জন্য পেয়েছি এই বাংলায় লেখার স্বাধীনতা

বঙ্গবন্ধু তোমার জন্যই বেড়েযায় তোমাকে পাওয়ার আকূলতা।

 

বঙ্গবন্ধুর মহানুভবতা হৃদয়ে গাঁথা যেন মা-বাবার চোখে সন্তান

বঙ্গবন্ধুর জন্য পেয়েছি কল্পলোকের গল্পকথা আর নিপুণ আলাপন।

 

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী তুমি ধরেছিলে এইদেশ রক্ষার্থে হাল

জননেত্রী শেখ হাসিনারও আছে দেশের প্রতি অনুরূপ মায়াজাল।

 

বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. বেলায়েত হোসেনের যুদ্ধের স্মৃতি পড়ে মনে

এই স্বাধীন পতাকার জয়ের নেশায় অস্ত্রহাতে তুলেছিল সেই ক্ষণে।

 

বঙ্গবন্ধু তোমার জন্যই পেয়েছি আমি আমার বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবা

তোমার ডাকেই স্বাধীন হয়েছি দমিত হয়েছে শত্রুর হিংস্র থাবা।

 

তোমার ভাষণের জাদুতে বেড়েযায়, যুদ্ধে যাওয়ার তীব্র মনোবল

ভীত চিত্ত নির্ভীক উদ্যত, ছিনিয়ে আনতে লাল-সবুজের আঁচল।

 

হে! বঙ্গবন্ধু তোমায় নিয়ে লেখা কবিতা, গানেও সযত্ন সুর

বঙ্গবন্ধু তোমার জন্মশতবার্ষিকী হয় সমাপ্ত, শ্রদ্ধায় ভরপুর।

 

বঙ্গবন্ধু তোমার জন্যই সোহাগ-আদরে, শিশুমনে জয়োগান

ধন্য তাঁরা মুজিব কণ্ঠে শুনেছিল যারা, স্বাধীনতার আহ্বান।

 

তোমার জন্য বসন্তকালে শিমুলের ডালে কোকিলের কুহুতান

শিশু দিবসে আঁকা রঙ তুলিতে মাখা, দৃষ্টি-নন্দিত সাগরে সাম্পান।

 

মৃদু-নিভু আলোতে রাতের কালোতে তুমি জ্যোৎস্নাময় অফুরন্ত

ঝড়-বাতাসের বেগে ঘনকালো মেঘে তুমি প্রজ্জ্বলিত সীমান্ত।

 

হে বঙ্গবন্ধু! তোমার জন্যই মুখে ফুটে ওঠা সুখের নির্লিপ্ত হাসি

বোঝাতে পারবো না সত্যি আমরা তোমায় কতটা ভালোবাসি।

 

১৯২০ সালের ১৭ মার্চে জাতির পিতার জন্মগ্রহণ ‘শুভ জন্মদিন’

১৭ মার্চ ২০২০ মুজিব বর্ষে জন্মশতবার্ষিকী হয় তাঁর, শোধ হয় না ঋণ।

 

বিশেষ দ্রষ্টব্য: সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-কে নিবেদিত কবিতা। কবিতাটি লেখার অনুপ্রেরণায় ছিলেন লেখকের বাবা বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. বেলায়েত হোসেন, সালথা, ফরিদপুরের সাবেক সভাপতি, মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই কমিটি, জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার।

লেখক: মো. তাজুল ইসলাম সোহাগ, বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান টিভি ও বেতার সংবাদ উপস্থাপক, গীতিকার বিটিভি ও বাংলাদেশ বেতার,কবি, আবৃত্তিশিল্পী, নাট্যকর্মী ও বেতার ঘোষক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও পড়ুন