অফবিট

পদ্মার দুই তীরে হংকংয়ের আদলে নগরায়ণ হবে

দক্ষিণ চীন সাগরের তীরে পরিকল্পিত সুসজ্জিত নগরী হংকং। নান্দনিকতা ও বাণিজ্যের জন্য হংকংয়ের খ্যাতি বিশ্বজোড়া। পদ্মাসেতুর দুই তীরেও হংকংয়ের আদলে নগরায়ন হবে।

পচিঁশে জুন উদ্বোধনের পর পদ্মার দুই তীরে হংকংয়ের আদলে নগরায়ন হবে। পদ্মা সেতুর কারণে শ্রীনগর ও লৌহজংয়ে শিল্প-কারখানা হচ্ছে।

গার্মেন্টপল্লি, কৃষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, শ্রমিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, কারিগরি কলেজ, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান ও হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার জন্য বিনিয়োগ করছে বড় বড় শিল্পগোষ্ঠি।

পদ্মা সেতুর রাতের দৃশ্যপট

পদ্মাপাড়ে ক্ষুদ্র ব্যবসা গড়ে উঠছে, সচল হবে অর্থনীতির চাকা। দুই পাড়ে বেড়েছে জমির দাম। বদলে যাচ্ছে ভূ-অর্থনীতি। গড়ে উঠছে পর্যটনকেন্দ্র।

গার্মেন্টস, হিমাগার, হোটেল-মোটেল, আবাসিক হোটেল নির্মিত হচ্ছে। আগের চেয়েও ব্যবসা-বাণিজ্য জমে উঠবে দ্বিগুণ। আর এভাবেই বদলে যাচ্ছে পদ্মার দুই পাড়ের দৃশ্যপট।

পদ্মার তীরেই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, অলিম্পিক ভিলেজ, কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, নৌ-বন্দর, অভ্যন্তরীণ কনটেইনার টার্মিনাল হাতছানি দিচ্ছে।

বিশেষ অর্থনৈতিক জোন, ইকোনমিক করিডোর, আধুনিক রেল, সড়ক ও নৌ-যোগাযোগ ব্যবস্থা হংকংয়ের আদলে নতুন নগরায়নের স্বপ্নের পথ এগিয়ে দিচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও পড়ুন