সাহিত্য

চিলেকোঠার চিঠি

পেরিয়েছে মাস, পেরিয়েছে বছর

পাইনি তোমার দেখা,

সেদিনের পর আজও কি

মান ভাঙেনি তোমার।

 

আজও অপেক্ষারত আমি

চিলেকোঠার সেই দ্বারে,

চোখ দুটি মোর শূণ্য  দৃষ্টিতে –

পথটি তোমার চেয়ে আছে।

 

স্মৃতির চ্যাপ্টার ঘাঁটতে ঘাঁটতে

চোখ আটকে যায় সেই পেইজে,

যেদিন তোমার সাথে হয়েছিল মিলন

পঞ্চাশ বছর আগের এই রাতে।

 

সেদিনের সেই রূপসী কন্যা

পরী হয়ে আসে আমার জীবনে,

সেদিনের সেই পাগল দৃষ্টি

আজও অমর রয়ে আছে।

 

তোমার সাথে কাটলো যুগ

এই হাতে হাত ধরে দুজনা,

প্রতি ক্ষণে পাগল হই আমি

তোমার রূপে, আমার রাজকুমারী।

 

সেদিনের চোখে পড়েছে ছানি

দৃষ্টি বাঁধা চশমায়,

দুই পায়ে নয়, তিন পায়ে চলি

এভাবেই ঘুরি পথঘাট।

 

সকাল ঘনিয়ে এলো রাত

হলো সমাপ্তি আরেকটি দিনের,

পাখিরা ফিরছে নিজ সংসারে

বাড়ি ফিরে আসছি আমি।

 

রাণী পক্ষী রাজার অপেক্ষায়

আমার অপেক্ষায় কেউ নেই,

পথঘাট ঘুরে আবার বন্দী ;

চিলেকোঠার চারদেয়ালে।

 

সবাই বলে আমি একা

ধুর,বুঝে না তারা,বেশ বোকা;

আমার যে এখনো আছো তুমি

আর আছে স্মৃতি তোমার।

 

এই স্মৃতি নিয়ে কাটাবো জীবন

করবো অপেক্ষা তোমার,

একদিন তুমি নিশ্চয়ই আসবে

পরিচিত এই চিলেকোঠায়।

কলমে: গুঞ্জন মিত্র, শিক্ষার্থী ও উদীয়মান লেখক

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও পড়ুন