ভিউস

গোটা বিশ্ব খাদ্য বিপর্যয়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে : দ্য ইকোনোমিস্ট

জেসিকা জাহান: দেশে দেশে যুদ্ধ-বিগ্রহের ফলে খাদ্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভেঙে পড়ছে। ক্ষুধা ও দুর্ভিক্ষের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে গোটা বিশ্ব।

ব্রিটেনের খ্যাতনামা ম্যাগাজিন দ্য ইকোনোমিস্ট এক নিবন্ধে এমন আশঙ্কার কথা প্রকাশ করেছে।

নিবন্ধে বলা হয়েছে, করোনা বৈশ্বিক খাদ্য ব্যবস্থা বেশ দুর্বল হয়ে পড়েছে।

কিন্তু সেই ক্ষতি পুষিয়ে উঠার আগেই ”রাশিয়া ও ইউক্রেন যুদ্ধ” খাদ্য সংকটকে আরও ঘনীভূত করছে।

এরই মধ্যে দেশে দেশে রেকর্ড মূল্যস্ফীতি দেখা দিয়েছে। বেড়ে গেছে জীবনযাত্রার ব্যয়।

ইউক্রেন ও রাশিয়া বিশ্বের ১০ শতাংশ খাদ্য সরবরাহ করে। তারা বিশ্বের ৩০ শতাংশের বেশি গম ও ৬০ শতাংশ সূর্যমুখী তেল উৎপাদন করে।

কমপক্ষে ২৬টি দেশ খাদ্যশস্যের জন্য দুইদেশের ওপর নির্ভরশীল। সংঘাত খাদ্য উৎপাদন থমকে দিয়েছে। বন্ধ হয়ে গেছে রফতানি।

যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে কুয়েত থেকে কাজাখস্তান পর্যন্ত অন্তত ২৩টি দেশ ”খাদ্য রফতানিতে কঠোর বিধিনিষেধ” আরোপ করেছে।

অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটাতেই দেশগুলো এমন সিদ্ধান্ত নেয়। সার রফতানি সীমাবদ্ধ করা হয়েছে। এখন বাণিজ্য থেমে গেলেই দেশগুলোতে দুর্ভিক্ষ দেখা দেবে।

ইকোনোমিস্টের নিবন্ধ বলছে, রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাতের কারণে নতুন করে শত শত কোটি মানুষ দারিদ্রের ঝুঁকিতে রয়েছে।

বিশ্বজুড়ে ইতোমধ্যে এক বেলা খেলে আরেক বেলা খাওয়ার নিশ্চয়তা নেই মানুষের সংখ্যা বেড়েছে ১৬০ কোটি।

দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে প্রায় ২৫ কোটি। আরও কয়েক কোটি মানুষ দারিদ্র্যতার মধ্যে পড়তে পারে বলে ইকোনমিস্টের নিবন্ধে উল্লেখ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও পড়ুন

সিলেট-সুনামগঞ্জ বানভাসীর পাশে তিতাস-দাউদকান্দিবাসী

স্মরণকালেল সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার কবলে পুণ্যভূমি খ্যাত সিলেট ও সুনামগঞ্জের […]

বিশ্ব গণমাধ্যমে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের খবর

আট বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটেছে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের প্রায় তিন কোটি […]