ভিউস

খোঁজ মিলল ১৯ ইঞ্চি লম্বা কানের ছাগল ছানার

ছাগল ছানার নাম সিম্বা। গত ৫ জুন পাকিস্তানের করাচিতে জন্ম হয় এটির। তবে এরই মধ্যে বিশেষ শারীরিক বৈশিষ্ট্য ছাগলছানাটিকে বিশেষ পরিচিতি দিয়েছে।

সিম্বার রয়েছে বিশালাকারের দুইটি কান। অনেকেই বলছেন, সিম্বা বিশ্বের সবচেয়ে বড় কানের ছাগল। তবে এই দাবির আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি এখনো পায়নি ছাগল ছানাটি।

সিম্বার মালিক মোহাম্মদ হাসান নারেজো। তার বাড়ি করাচিতে। ৫ জুন তার বাড়িতেই জন্ম নেয় ছাগল ছানাটি। এর নাম সিম্বা রাখেন নারেজো।

জন্মের পর থেকে নজর কাড়ে সিম্বার বড় আকারের দুইটি কান। ছানাটির প্রতিটি কানের দৈর্ঘ্য ১৯ ইঞ্চি বা ৪৬ সেন্টিমিটার লম্বা বলে জানান নারেজো।

নুবিয়ান জাতের লম্বা কানের ছাগল

সিম্বা নুবিয়ান জাতের ছাগল। পাকিস্তানে এ প্রজাতির ছাগল বড় কানের জন্য পরিচিত। তবে সিম্বার মতো এত বড় কানের নুবিয়ান ছাগলের খোঁজ আগে পাওয়া যায়নি।

চলাফেরা করতে গিয়ে অনেক সময় সিম্বার কান মাটি ছুঁয়ে যায়। তবে এত বড় কানের জন্য ছাগলছানাটির চলাফেরায় কোনো সমস্যা হয় না।

জিনগত পরিবর্তন বা কোনো রোগের কারণে ছাগল ছানাটির কান এতো লম্বা হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করছেন পশু বিশেষজ্ঞরা।

কান লম্বা হলেও সিম্বা পুরোপুরি সুস্থ রয়েছে। শারীরিক প্রতিবন্ধকতার কোনো লক্ষণ নেই বলে জানিয়েছেন ছাগল ছানা সিম্বার মালিক নারেজো।

বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা কানের অধিকারী ছাগল বলেও দাবি করেন মালিক নারেজো। এ জন্য আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পেতে তিনি গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে আবেদন করবেন।

গিনেস কর্তৃপক্ষ দ্রুত আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও পড়ুন

সিলেট-সুনামগঞ্জ বানভাসীর পাশে তিতাস-দাউদকান্দিবাসী

স্মরণকালেল সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার কবলে পুণ্যভূমি খ্যাত সিলেট ও সুনামগঞ্জের […]

বিশ্ব গণমাধ্যমে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের খবর

আট বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটেছে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের প্রায় তিন কোটি […]