ফার্স্ট লেডি

এবার ভারতের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বিমানে বাংলাদেশের ‘গন্ডি’

কৌশিক প্রিয়ালী:

ভালো গল্প আর মনোমুগ্ধকর অভিনয়ের নৈপুন্যে যে কোন সিনেমাকে দর্শকদের সামনে আনা যায় তা আবারও প্রমাণ করেছ বাংলাদেশি সিনেনা গন্ডি।

দেশ ও দেশের সীমানা ছাড়িয়ে নানা চলচ্চিত্র উৎসবে সাফল্যের স্বাক্ষর রেখে যাচ্ছে বাংলাদেশের সিনেমা ‘গন্ডি’। বাংলাদেশের এই সিনেমাটি এবার ভারতের রাষ্ট্রপতি, উপ-রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিশেষ বিমান ‘এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান’এর ডিজিটাল আর্কাইভে যুক্ত হলো।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশি কোনো সিনেমা স্থান পেলো ভারতের বিশেষ এই বিমানে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চলচ্চিত্রটির নির্মাতা ফাখরুল আরেফীন খান। আগামী মার্চ মাস থেকে এই বিমানে চলাচলের চাইলেই সময় ‘গন্ডি’দেখতে পারবেন ভারতের রাষ্ট্রপতি, উপ- রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে ভারতের অযোধ্যা, লন্ডনের রেইনবো ও ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেষ্টিভ্যালে সিনেমাটি পুরস্কৃত হয়েছে। বেশ প্রশংসাও কুড়িয়েছে সিনামা সংশ্লিষ্টদের। সিনেমার রসায়ন বাস্তবতার সাথে মিল থাকায় সিনেমাটি বোদ্ধাদের মন জয় করেছে।রোমান্টিক-ড্রামা ঘরানার এই সিনেমার কাহিনী এগিয়ে যায় মূলত ৫৫ ও ৬৫ বছর বয়সী দু’জন নারী-পুরুষের গল্প নিয়ে। অবসরে থাকা এই বয়সে দুজন নারী-পুরুষের বন্ধুত্ব কেমন হয়, পরিবার ও আশপাশের মানুষ বিষয়টিকে কীভাবে নেয়— তা-ই উঠে এসেছে চলচ্চিত্রটিতে।

সিনেমাটির মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন ভারতের সব্যসাচী চক্রবর্তী ও বাংলাদেশের সুবর্ণা মুস্তাফা।আরো অভিনয় করেছেন অপর্ণা ঘোষ, মাজনুন মিজান, শিশুশিল্পী ঋদ্ধি প্রমুখ। ২০২০ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে মুক্তি পায় সিনেমাটি।

সিনেমা বোদ্ধারা বলছেন, সব্যসাচী চক্রবর্তী ও সুবর্ণা মুস্তাফা দুইজনই দুই বাংলার দুই দক্ষ ও জনপ্রিয় তারকা। দুইজনের অভিনয় শৈলীর কারণেই সিনেমাটি আন্তর্জাতিক অঙ্গণে আলোচিত ও প্রশংসিত হয়েছে। এছাড়া অপর্ণা ঘোষ ও মাজনুন মিজানও জাত অভিনেতা। সবমিলিয়ে আলোচনায় আসে সিনেমাটি।

Leave a Reply