সাহিত্য

আমাদের গল্পটা

আমাদের গল্পটা

 

আমাদের ভালবাসার গল্পজুড়ে 

যতদূর চোখ যায়,

পূর্ণতার সীমাহীন সময়ের মাঝে 

কোথাও বিচ্ছেদ নাই। 

 

ভিড়ের এই শহরের দেয়ালগুলো জানে –

জানে ওই প্রভাতী ট্রেনের ডাক, 

সাক্ষ্য দেয় দাঁড়িয়ে থাকা ল্যাম্পপোস্ট 

জানিয়ে দেয় যেন-

স্মৃতিচারণে জমে থাকা,

আমাদের সেই গল্পটা। 

 

তবু এই শহরের গল্প জানে 

ধূসর মেঘের কোনো-এক সন্ধিক্ষণে ;

তোমার আমার সেই গল্পটা 

কিভাবে আমাদের গল্প হয়! 

গোধূলির ফিরে আসা সন্ধিক্ষণে, 

নিয়ন আলো কিংবা সোডিয়ামে

জানে ঐ লিফটের অপেক্ষমান দরজা ;

গোলাপি দেওয়ালের কাব্যে কত না কথা! 

পাশের ওই জানালার অসীম আকাশে 

অপেক্ষমান দুটি পাখির তীব্র পিয়াসে, 

কোন এক ‘অবেলার গল্প’ জানে 

সকল ভুল উচ্চারণে –

তুমিই ছিলে আমার সকল অভিমানে। 

 

কখনো অফিস ডেস্কের ফাইলের আবডালে,

কিংবা প্রিয় দুই কলিগের চক্ষুর অন্তরালে, 

জমে উঠতো আমাদের 

না বলা কত না কথা –

কখনো বা হয়ে উঠতো, 

তুমি, আমি ও আমাদের কবিতা।

 

তবুও এই শহরের অলিগলিতে 

নিয়ন আলো ”আবির রাঙা” সন্ধ্যার, সন্ধিক্ষণে –

তুমি ছিলে আমার কাব্যের সকল পংক্তিতে, 

পাঁচমিশালী মনের রঙে রাঙানো –

কবিতায় রচিত আজ,

তুমি,আমি ও আমাদের গল্পটা।

 

কলমে: নিপুন দাস, শিক্ষিকা, কবি, লেখিকা, উপস্থাপিকা ও আবৃত্তিশিল্পী!

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও পড়ুন